ডায়াস্পোরা গিভিং

নিজেদের উৎস দেশে কৌশলগত বিনিয়োগ করার ক্ষেত্রে অভিবাসী সদস্যদের কী কী বাধা রয়েছে তা আমরা জানি। অংশীদারিত্বের মাধ্যমে এই বাধাগুলো অতিক্রম করতে, উৎস দেশে মূলধন প্রবাহ বাড়াতে এবং টেকসই সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব সৃষ্টি করতে আমরা উল্লেখযোগ্য সমাধান তৈরি করছি।

ডায়াস্পোরা গিভস

এটি চ্যারিটিজ এইড ফাউন্ডেশন (সিএএফ) আমেরিকা এর প্রধান কর্মসূচি যা তাদের দাতব্য বিনিয়োগের দক্ষতা ও কার্যকারিতাকে সম্প্রসারণ করা ও মূলধারায় প্রবাহিত করার মাধ্যমে অভিবাসী সম্প্রদায়ের সামাজিক ও অর্থনৈতিক সুপ্ত সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে চায়।

বাংলাদেশের জন্য ঐক্যবদ্ধ হওয়া

আমাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে অভিবাসীদেরকে দাতব্য মূলধন তাদের উৎস দেশে করবান্ধব উপায়ে এমনভাবে প্রেরণ করার জন্য ক্ষমতায়ন করা যা টেকসই উন্নয়নের পক্ষে উপকারী।

ডায়াস্পোরা গিভস কর্মসূচির জন্য বাংলাদেশকে পাইলট কান্ট্রি হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে। বাংলাদেশ 2021 সালের মধ্যে একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়ার চেষ্টা করছে এবং ইতিমধ্যেই এর জনগণকে দারিদ্র্য থেকে বের করে আনতে যথেষ্ট অগ্রগতি অর্জন করেছে। কিন্তু এখনও অনেক কাজ বাকি আছে – আমরা বিশ্বাস করি যে, বাংলাদেশি অভিবাসীদের পক্ষ থেকে সম্মিলিত সহমর্মিতাই এই লক্ষ্য অর্জনের এবং সর্বত্র বাংলাদেশিদের জীবনমানকে উন্নত করার চাবিকাঠি।

বাংলাদেশ সম্পর্কে তথ্য

150+
মিলিয়ন
মানুষ বাংলাদেশে বসবাস করে
26
বছর বয়সী
বাংলাদেশের মানুষের গড় বয়স 26 বছর
270
হাজার
270,000-এরও বেশি বাংলাদেশি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় বসবাস করে
17
এসডিজি
17টি টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা যা বাংলাদেশকে 2021 সালের মধ্যে মধ্য আয়ের দেশের মর্যাদায়